Home •বাংলাদেশ
•বাংলাদেশ
বাংলাদেশে মুরতাদদের অপরাধ ও শেখ হাসিনার মুরতাদপ্রীতি PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Sunday, 14 April 2013 22:53

অপরাধ বিদ্রোহে উস্কানির

মুরতাদ তারাই যারা প্রকাশ্যে ইসলাম পরিত্যাগ করে এবং আল্লাহর কোরআনী হুকুমের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে।বাংলাদেশের এমন মুরতাদের সংখ্যা বহু। এবং তাদের অপরাধও জঘন্য। তারা যে শুধু নিজেরা ইসলাম পরিত্যাগ করেছে ও আল্লাহ বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছে তা নয়। সাধারণ মানুষকেও তারা নানা ভাবে উস্কানি দিচ্ছে ইসলামের মৌল শিক্ষা পরিত্যাগে ও আল্লাহর বিরুদ্ধে প্রকাশ্য বিদ্রোহে।একাজে তারা ব্যবহার করছে দেশের টিভি নেটওয়ার্ক,পত্রপত্রিকা,ইন্টারনেটসহ নানা এনজিও ফোরাম। ইসলামের বিরুদ্ধে এভাবে যুদ্ধ শুরু করে তারা বিনষ্ট করছে বাংলাদেশের সামাজিক শান্তি। গত ৬ই এপ্রিল হেফাজতে ইসলামের ডাকে বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় সমাবেশ হওয়ায় তারা জোরে শোরে প্রচার শুরু করছে বাংলাদেশ মধ্যযুগের অন্ধকারে ফিরে যাচ্ছে।নারীদের বলছে,ইসলাম এলে তাদের স্বাধীনতা ও অধিকার কেড়ে নেয়া হবে এবং নারী শিক্ষা বন্ধ করে তাদেরকে গৃহবন্দী করা হবে। ইসলামি জাগরণের বিরুদ্ধে এসব কথা বলে তারা স্কুলছাত্রী ও গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রির নারী শ্রমিকদেরও ময়দানে নামানোর ষড়যন্ত্র করছে।

 

Last Updated on Sunday, 14 April 2013 23:07
Read more...
 
বাংলাদেশের রাজনীতিতে ভূমিকম্প PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Sunday, 07 April 2013 18:19

উল্টে গেল শাহবাগ মঞ্চ

বাংলাদেশের রাজনীতিতে এখন প্রচণ্ড ভূমিকম্প।এ ভূমিকম্পে শুধু যে সরকারের পতন ঘটাবে তাই নয়।আমূল পরিবর্তন আসবে বহু কিছুতেই।লন্ডভন্ড হয়ে যাবে বহু কিছুই। ইতিমধ্যে এ ভূমিকম্প উল্টিয়ে দিয়েছে শাহবাগ সার্কাসের সাজানো মঞ্চ। ভারতপন্থি ও ইসলামবিরোধী সকল রাজনৈতিক দল,সবগুলি সেক্যুলার সাংস্কৃতিক সংগঠন,সকল ইসলামবিরোধী পত্র-পত্রিকা ও মিডিয়া এবং ইসলামবিরোধী সকল বুদ্ধিজীবী শাহবাগের ব্লগারদের দিয়ে বাংলাদেশের রাজনীতির উপর দীর্ঘকালীন দখলদারির পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু এ ভূমিকম্প তাদের সবকিছুই লন্ডভন্ড করে দিল। তারা ভাবতেই পারিনি,এত দ্রুত তাদের সকল স্বপ্ন হাওয়াই হারিয়ে যাবে। ভূমিকম্পে তো এমনটিই ঘটে। ৬/৪/১৩ তারিখের দৈনিক মানবজমিন লিখেছে,অবস্থা বেগতিক দেখে শত শত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী এখন বিপুল অর্থ সাথে নিয়ে বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে। ৬/৪/১৩ তারিখে লংমার্চ শেষ হলো।কিন্তু লংমার্চ কি শুধু মাইলের পর মাইল পথ হাটায় বা সমাবেশে শেষ হয়? রাজনীতির এটি এক সুদুরপ্রসারি কৌশল।রাজনীতির সাথে লংমার্চের একটি সাংস্কৃতিক ও আদর্শিক বিপ্লবের লক্ষ্যও থাকে। তেমন একটি লক্ষ্য নিয়েই বাংলাদেশের রাজনীতিতে শুরু হয়েছে লাগাতর ভূমিকম্প।

 

Last Updated on Sunday, 07 April 2013 18:42
Read more...
 
মুনতাসির মামুনের মুরতাদ প্রসঙ্গ ও হাসীনার হেলেপড়া কুরসিতে শক্ত ধাক্কা PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Saturday, 23 March 2013 21:27

মুনতাসির মামুনের মনকষ্ট

দৈনিক জনকন্ঠের ১৭ই মার্চ,২০১৩ সংখ্যায আওয়ামী ঘরানার বুদ্ধিজীবী মুনতাসির মামুন মনের প্রচন্ড ক্ষেদ নিয়ে লিখেছেন, তাকে কেন নাস্তিক ও মুরতাদ বলা হয়।তার অভিযোগ,“এ নিয়ে আমাকে কয়েকবার মুরতাদ ঘোষণা করা হলো।..গত দুই দশকে এই ধরনের অনেক প্রতিষ্ঠান আমাদের মুরতাদ ঘোষণা করেছে,জামায়াতীরা বলছে আমরা নাস্তিক।” আল্লামা শফির হেফাজতে ইসলামের বিরুদ্ধে তার অভিযোগ, হেফাজতে ইসলামও তাকে জামায়াতের মত মুরতাদ ও নাস্তিক বলছে। তার কথা,“তা হলে হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে জামায়াতের পার্থক্য কী রইল?” তিনি মুরতাদের একটি অর্থ খাড়া করেছেন। বলেছেন, “মুরতাদ মানে কী? ইসলাম ধর্ম ত্যাগ করে ফিরে যাওয়া।” মুরতাদ প্রসঙ্গে উলামাদের মতের ব্যাখা দিতে গিয়ে বলেছেন,“ইসলাম কেউ ত্যাগ করেছে তাকে মুরতাদ বলা ও তার ওপর হামলা করা। এইটি উলেমাদের মত। কোরান বা রাসূলের (স) নয়।” এখানে তিনি উলামাদের বিরুদ্ধে বিষোদগার করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে তার অভিযোগ উলামা এমন কিছু বলছেন যা পবিত্র কোরআন-হাদীসে নাই। অর্থাৎ তার ভাষায় উলামাগণ মিথ্যাবাদী। এবং অভিযোগোর সুরে বলেছেন, ‘উলেমাদে’র কাছে আমরা তো দেশ আর ধর্ম ইজারা দিইনি।”

Last Updated on Sunday, 24 March 2013 00:11
Read more...
 
রক্তে লাল বাংলাদেশঃ জনগণ কি আঙ্গুল চুষবে? PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Sunday, 31 March 2013 14:43

লাশ আর লাশ

বাংলাদেশে এখন শুধু লাশ আর লাশ। পুলিশের গুলিতে বিগত ফেব্রেয়ারি ও মার্চ -এ দুটি মাসেই নিহত হয়েছে ২০০ জনের বেশী নিরপরাধ নিরীহ মানুষ। হত্যা করা হয়েছে মায়ের কোলের শিশু ও গৃহিনী নারীকেও। অতীতে কখনোই আন্দোলন দমাতে এভাবে শিশু ও নারীদের হত্যা করা হয়নি। গত ২৯/৩/১৩ তারিখে কোন হরতাল ছাড়াই এক দিনে নিহত হয়েছে ৭ জন। তাদের মধ্যে ৩ জন নিহত হয়েছে চাপাঁইনবাবগঞ্জ,২ জন সিরাজগঞ্জে এবং ২ জন খুলনায়। গত ২৮শে ফেব্রেয়ারির এক দিনে হত্যা করা হয়েছে ৭০ জনকে।পাকিস্তান আমলের সমগ্র ২৩ বছরে সব মিলে পুলিশের গুলিতে রাজপথে এত মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। স্বৈরাচারি এরশাদের আমলে একদিনে ২জন নিহত হয়েছিল। আর তাতেই “চারিদিকে দেখি লাশের মিছিল” নামে গণসঙ্গিত লেখা হয়েছিল। লেখা হয়েছিল “ঝরাও রক্ত,ছড়াও রক্ত,যত খুশী তুমি পার;রাজপথে আজ জনতা জেগেছে,যত খুশী তুমি মার।” আওয়ামী লীগ কর্মী ও বামপন্থিরা সেদিন সে গান আর হারিমোনিয়াম নিয়ে রাজপথে নেমেছিল। অথচ আজ  এত খুন,কিন্তু সে খুনের বিরুদ্ধে বামপন্থিরা শুধু নীরবই নয়,খুন নিয়ে তারা বরং উৎসব করছে। তারা চায়,আরো খুন আরো লাশ। লাশের রক্তমাংস নিয়ে তারা সকাল বিকাল নাশতা করতে চায়।

Read more...
 
ডাকাতি ও গণহত্যায় বুদ্ধিজীবীদের উস্কানি এবং কলংকিত বাংলাদেশ PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Sunday, 10 March 2013 15:00

গণহত্যা বাংলাদেশে

ফিরাউন, হিটলার, স্টালিন বা মুজির নিজে হাতে মানুষ খুন করেছেন -সে প্রমাণ নাই। অথচ মানব ইতিহাসে তারাই অতি জঘন্যতম গণগত্যার নায়ক। হুকুম পালনে অসংখ্য চাকর-বাকর থাকলে কি নিজ হাতে মানুষ খুনের প্রয়োজন পড়ে? বাংলাদেশের আইনেও আদালতে প্রমাণিত কোন খুনিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে হত্যার অধিকার কোন ম্যাজিস্টেটের থাকে না। জেলা জজেরও থাকে না। তাঁকেও দেশের হাইকোর্ট থেকে অনুমতি নিতে হয়। কিন্তু স্বৈরাচারি সরকারগণ মানবহত্যার সে অধিকার তাদের আজ্ঞাবহ অশিক্ষিত দাস-সৈনিকদের দেয়। মুজিব তাই সে অধিকার দিয়েছিলেন রক্ষিবাহিনীর সাধারণ সেপাইদেরকে। মুজিবের এ সেপাইগণ ৩০ হাজারের বেশী মানুষ নির্বিচারে হত্যা করেছিল। দেশে মশামাছি মারলে যেমন বিচার হয়না, তেমনি ৩০ হাজার মানুষ হত্যারও কোন বিচার হয়নি। ফলে হত্যাকারি সেপাইদের মধ্যে কারো গায়ে কোন আঁচড়ও লাগেনি। অথচ কোন সভ্যদেশে এমন হত্যাকান্ড হবে এবং হত্যাকান্ড শেষে তার নায়কগণ বিনা বিচারে পার পেয়ে যাবে সেটি কি ভাবা যায়? কিন্তু বাংলাদেশে সেটিই রীতি।

Read more...
 
<< Start < Prev 1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 Next > End >>

Page 10 of 23
Dr Firoz Mahboob Kamal, Powered by Joomla!; Joomla templates by SG web hosting
Copyright © 2018 Dr Firoz Mahboob Kamal. All Rights Reserved.
Joomla! is Free Software released under the GNU/GPL License.