লড়াই ও রাষ্ট্রবিপ্লব
ইসলামী রাষ্ট্রবিপ্লবের রোডম্যাপ PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Sunday, 27 February 2011 01:00

ভূমিকা 

 মুসলমান হওয়ার অর্থই হলো ইসলামের পূর্ণ অনুসরণ। সেটি যেমন নামায-রোযার ন্যায় ধর্মীয় অনুশাসনে, তেমনি প্রতি কর্মে। তখন সে কর্মের গন্ডির মধ্যে এসে যায় রাষ্ট্র এবং সমাজও। তাই মুসলমান মাত্রই স্বপ্ন দেখে এবং সে সাথে আত্মনিয়োগ করে ইসলামী রাষ্ট্রবিপ্লবের। যার মধ্যে যে স্বপ্ন এবং আত্মনিয়োগ নেই, বুঝতে হবে তার মধ্যে ইসলামও নেই। তাই সমস্যা এখানে ইসলামী রাষ্ট্রবিপ্লব নিয়ে স্বপ্ন দেখা নয়, বরং কীরূপে সেটি সম্ভব তা নিয়ে। এ প্রসঙ্গে নানা দল ও নেতার নানা মত। বাংলাদেশের ন্যায় প্রতিটি মুসলিম দেশে এমন ভাবনা নিয়ে বহু দল বহু বছর ধরে কাজ করছে। কিন্তু তাদের পথ ও প্রক্রিয়া নিয়ে কী আজও কোন গবেষণা হয়েছে? তাদের ত্রুটিগুলো কী এবং সফলতাই বা কতটুকু-তা নিয়েও কী কোন চিন্তাভাবনা হয়েছে? এ নিয়ে বিতর্ক নেই যে, বাংলাদেশের ন্যায় মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে ইসলাম একটি পরাজিত জীবন বিধান। আল্লাহ-প্রদত্ত ব্যক্তি,সমাজ ও রাষ্ট্র নির্মাণের এ শ্রেষ্ঠ রোডম্যাপটি অতি সীমিত পরিসরে বেঁচে আছে। রাষ্ট্র ও সমাজের গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রগুলো দখলে গেছে ইসলামের বিপক্ষ শক্তির হাতে। যে কোন মুসলমানের কাছে এটি অসহ্য এক পীড়াদায়ক বিষয়। কোন মুসলমান কী ইসলামের এমন পরাজয় মেনে নিতে পারে? বিচার দিনে আল্লাহতায়ালার দরবারে এ পরাজয় নিয়ে তার নিজের কৈফিয়তটিই বা কি হবে?

Read more...
 
যে দায়িত্ব প্রতিটি মুসলমানের PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Saturday, 01 January 2011 19:02

মুসলমানের জীবনে যেটি অপরিহার্য তা হলো আল্লাহর পক্ষে সাক্ষ্যদান। এ সাক্ষ্য সত্য বা হক্বের পক্ষে। এ কাজ আজীবনের। ইসলামী পরিভাষায় এটিই হলো শাহাদাহ। মুসলিম হতে আগ্রহী প্রতিটি ব্যক্তিকে এ কালেমায়ে শাহাদাহ পাঠ করতে হয়। এ কালেমা পাঠ ছাড়া কেউ মুসলমান হতে পারে না। মুসলমানের জীবনে সকল বিপ্লবের উৎস হলো এটি। শাহাদাহ শব্দের অর্থ সাক্ষ্য দেওয়া। তাকে সাক্ষ্য দিতে হয়, আল্লাহ ছাড়া কোন উপাস্য নেই এবং রাসূলে পাক হযরত মহম্মদ (সাঃ) হচ্ছেন তাঁর গোলাম ও রাসূল। বস্তুতঃ শাহাদার মধ্য দিয়ে মুসলমান রূপে তার যাত্রা শুরু হয়। সে পায় সঠিক লক্ষ্য, বাঁচবার সঠিক পথ ও সঠিক এজেন্ডা। আল্লাহর নিবেদিত গোলাম ও তাঁর পক্ষে সাক্ষ্যদানের চেয়ে ব্যক্তির জীবনে যে উচ্চতর কোন মর্যাদা ও মিশন নেই সে চেতনাও তখন বদ্ধমূল হয়।

Last Updated on Sunday, 27 February 2011 00:50
Read more...
 
বাংলাদেশে ইসলামের বিজয় কীরূপে সম্ভব? PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Saturday, 01 January 2011 08:06

দেশের রাজনীতি, সমাজনীতি ও অর্থনীতির বহুবিষয় নিয়েই মুসলমানদের মাঝে মতভেদ থাকতে পারে। কিন্তু যা নিয়ে সামান্যতম বিরোধের অবকাশ নেই তা হল, ইসলামের বিজয়ের স্বপ্ন দেখা নিয়ে। কারণ, ইসলামকে পরাজিত দেখার মধ্যে আনন্দ থাকতে পারে একমাত্র কাফেরের। কোন মুসলমানের নয়। কে মুসলমান আর কে কাফের সেটির বিচার ব্যক্তির নাম দেখে হয় না। মুখে কে কি বললো তা থেকেও নয়। বরং সে বিচার হয়, যেটি সে অন্তর থেকে চাইলো বা বাস্তবে করলো তা থেকে। আর মহান আল্লাহ তো মানুষের মনের ভাষা বুঝেন। এবং কর্মও দেখেন। মুসলমানের জীবনে প্রধানতম ভাবনা ও অঙ্গিকার হল, আল্লাহর দ্বীনকে বিজয়ী করার ভাবনা। তার চেতনায় সবসময় কাজ করে কি করে সে তার সামর্থকে সে কাজে বিণিয়োগ করবে। কারণ মুসলমান হওয়ার অর্থ, রাজনীতির খেলার মাঠে দর্শক হওয়া নয়, বরং জ্বিহাদের ময়দানে সক্রিয় মোজাহিদে পরিনত হওয়া। একাজে আত্মনিয়োগ ছাড়া একজন মুসলমান কি মহান আল্লাহকে খুশি করতে পারে? নামায-রোযা বা দান-খায়রাতে যেমন নিয়ত বাঁধতে হয়, তেমনি নিয়ত বা লক্ষ্য নিদ্ধারণ করতে হয় বাঁচা-মরা ও জীবন ধারনের ক্ষেত্রেও। ইবাদতের নিয়ত না থাকলে কোন ইবাদতই যেমন ইবাদত হয় না, তেমনি উচ্চতর নিয়ত না থাকলে বাঁচাটিও পশুদের বাঁচা থেকে ভিন্নতর হয়না। বোখারী শরিফের প্রথম হাদীসটি হল, “সকল কাজের মর্যাদা বা মূল্যমান নির্ধারিত হবে তার নিয়ত থেকে।” মানুষের বাঁচবার সে উচ্চতর নিয়ত শেখাতেই পবিত্র কোরআনে মহান আল্লাহতায়ালা আয়াত নাযিল করেছেন এবং বলেছেনঃ “বলুন (হে মহম্মদ)! আমার নামায, আমার কোরবানী এবং আমার জীবন-ধারণ ও মরণ –সব কিছুই সেই বিশ্ব-প্রতিপালক মহান আল্লাহর জন্য।” -সুরা আল-আনয়াম, আয়াত ১৬২।   

Last Updated on Sunday, 27 February 2011 00:40
Read more...
 
ইসলামের বিজয় যে পথে অনিবার্য হয় PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Saturday, 01 January 2011 18:40

দুর্বলতা যেমন ভদ্রতা নয় তেমনি মহৎ গুণও নয়। এটি শুধু অযোগ্যতাই নয়, ভীরুতাও। জাতির জীবনে এমন দুর্বল মানুষের সংখ্যা বাড়লে পরাজয় ও অসম্মানের পাশাপাশি বিপদগ্রস্ত হয় তখন জাতির বেঁচে থাকাটিও। কারণ, বন্য জগতের চেয়েও বিপদজনক হলো এ মনুষ্য জগত। হাজার টন বোমা বন-জঙ্গল বা পশুপাখির মাথায় নিক্ষিপ্ত হয় না, হয় ঘনবসতি পূর্ণ জনপদে। যেটি হচেছ ইরাক, ফিলিস্তিন, আফগানিস্তান ও চেচনিয়ায়। তাই বাঁচতে হলে বাঁচবার প্রস্তুতিও চাই। বুদ্ধিবিবেক ও পেশীশক্তি নিছক উপার্জন বাড়ানোর জন্য নয় বরং জীবন ও ইজ্জত বাঁচানোর জন্যও। তাই আত্মমর্যাদাশীল ব্যক্তি পানাহারের সাথে প্রতিরক্ষায়ও মনযোগী হয়। সে শুধু চাষাবাদ বা ব্যবসাবাণিজ্যই করেনা, যুদ্ধও করে। বিষয়টিকে আল্লাহপাক গুরুত্ব দিয়েছেন এভাবেঃ “ওয়া আয়িদ্দুউলাহুম মাস্তাতা’তুম মিন ক্বুউওয়া” (সুরা আনফাল ৬০) অর্থঃ “এবং (তাদের মোকাবেলায়) নিজেদের প্রস্তুত কর সমস্ত শক্তি দিয়ে।” এ ঘোষণা এসেছে নির্দেশের ভাষায়।

Last Updated on Sunday, 27 February 2011 00:45
Read more...
 
বাংলাদেশের ইসলামী দলগুলোর অপরাধ PDF Print E-mail
Written by ফিরোজ মাহবুব কামাল   
Friday, 06 November 2009 02:18

অপরাধ ইসলামকে আড়াল করার
বাংলাদেশের ইসলামি দলগুলোর অপরাধ অনেক। তবে বড় অপরাধ হলো, ইসলামের মূল পরিচয়টি তুলে না ধরার। এ অপরাধ সত্যকে গোপন করার। আর প্রতিটি অপরাধই আল্লাহর আযাব ডেকে আনে। বাংলাদেশে সে আযাবই কি কম? তারা যে ইসলামকে পেশ করছে তাতে নামায-রোযা ও হজ্ব-যাকাত আছে। মসজিদ-মাদ্রাসা, ওয়াজ-মাহফিল ও ইসলামের নামে দলগড়ার আহ্বানও আছে। কিন্তু যেটি নেই তা হলো নবীজী (সাঃ) নিজে যে ইসলামকে বহু যুদ্ধ ও বহু ত্যাগের বিনিময়ে বিজয়ী করেছিলেন সেটির পূর্ণাঙ্গ পরিচয়। মেঘ যেমন সূর্যকে আড়াল করে রাখে তারাও তেমনই তাঁর আমলের সে ইসলামকে আড়াল করে রেখেছে। ফলে বাংলাদেশ একটি মুসলিম-প্রধান দেশ হওয়া সত্ত্বেও সবচেয়ে অপরিচিত হলো নবীজী (সাঃ)র আমলের সনাতন ইসলাম। বরং সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের কাছে সে ইসলাম পরিচিতি পেয়েছে মৌলবাদ রূপে। সেটিকে বলছে, জ্বিহাদীদের ইসলাম। সাধারণ মানুষ দূরে থাক, প্রধান প্রধান ইসলামি দলগুলোও সে ইসলাম থেকে সযত্নে দূরে থাকার চেষ্টা করছে।

Last Updated on Monday, 20 February 2012 21:29
Read more...
 
<< Start < Prev 1 2 3 Next > End >>

Page 2 of 3
Dr Firoz Mahboob Kamal, Powered by Joomla!; Joomla templates by SG web hosting
Copyright © 2017 Dr Firoz Mahboob Kamal. All Rights Reserved.
Joomla! is Free Software released under the GNU/GPL License.